Ticker

6/recent/ticker-posts

fish recipe bengali | top fish recipe |মাছ এর রেসিপি বাড়িতেই বানান


মাছের মাথা দিয়ে পুঁই শাক

মাছের মাথা দিয়ে পুঁই শাক চচ্চড়ি বানান


উপকরণ :- মাছের মাথা দিয়ে পুঁই শাক বানানোর জন্য কি কি লাগছে দেখুন -

পুঁই শাক লাগছে ২৫০ গ্রাম,

১ টা রুই মাছের মাথা ( আপনারা চাইলে ইলিশ বা কাতলা মাছের মাথা নিতে পারেন তাতেই হবে),

কুমড়ো ২৫০ গ্রাম,

২ টো মাঝারি মাপের আলু,

২ টো পেঁয়াজ, তেজপাতা ১ টা,

২ টো গোটা শুকনো লঙ্কা,

পাঁচ ফোড়ন সামান্য,

সরষের তেল ১ টেবিল চামচ,

গোটা জিরে ১ চামচ এর ৪ ভাগের ১ ভাগ,

এলাচ ২ টো, লবঙ্গ ২ টো, দারচিনি এক টুকরো,

চিনি ১/২ চামচ,

লঙ্কা গুঁড়ো ১ চামচ,

হলুদ গুঁড়ো ১ চামচ এর ৪ ভাগের ১ ভাগ( মাছের মাথাতে মাখানোর জন্য আলাদা হলুদ নিতে হবে আগে থেকে জানিয়ে দিলাম),

নুন লাগবে পরিমাণ মতো, আদা-রুসুন বাটা ১ চামচ আর লাগছে ভেজানো ছোলা।


 কি ভাবে বানাবেন মাছের মাথা দিয়ে পুঁই শাক ?

প্রণালী :-

প্রথমে সব্জি গুলো ভালো ভাবে পিস পিস করে কেটে নিতে হবে। আলু আর কুমড়ো মাঝারি মাপ করে কাটতে হবে সেটা আপনারা বুঝতেই পারবে। আলু আর কুমড়ো যেনো এক সাথে সেদ্ধ হয় সেই মতো বুঝে সাইজ করে কাটতে হবে।

এরপর এর স্টেপ এ কাটতে হবে পুঁই শাকের ডাঁটা, এবং পুঁইশাকের ডাঁটা গুলো কাটতে হবে মাঝারি মাপ করে। ডাঁটার গায়ে যে খোসা বা ছাল টা থাকে সেগুলো ফেলে দিতে হবে।

পুঁই শাক গুলো ভালোভাবে সরু সরু করে কুঁচিয়ে নিতে হবে। এরপর সব সব্জি ধুয়ে নিতে হবে ভালো করে না ধুলে মাটি আর বলি থাকে তাই ভালো করে ধুয়ে নেওয়া ভালো।

তারপর রান্নার প্রথমে গোটা জিরে এবং এলাচ, লবঙ্গ আর দারচিনি শুকনো করাইয়ে ভেজে গুঁড়ো করে নিতে হবে। এটা সব সময় হাতে বানানোর চেস্টা করবেন রান্নার ঠিক একটু আগেই , এতে গন্ধ টা ভালো আসে রান্নাতে স্বাদ ভালো হই , আগে থেকে বানানো গুঁড়ো মশলা ব্যাবহার না করায় ভালো।

পরের স্টেপ মাছের মাথা তে নুন আর হলুদ মাখিয়ে নিতে হবে। এরপর মাছের মাথা ভাজবার জন্য কড়া গরম করে তেল দিতে হবে। তেল গরম হলে মাছের মাথা গুলো কড়াইয়ে দিয়ে দিতে হবে।

ভালো করে উল্টে পাল্টে মাছের মাথা ভেজে নিতে হবে। মাছের মাথাটা ভেঙে দিয়ে ভালোভাবে ভেজে তুলে নিতে হবে কিছুক্ষন ভাজার পর ।

ওই তেলেই দিয়ে দিতে হবে তেজপাতা, শুকনো লঙ্কা আর পাঁচ ফোড়ন। সামান্য ভেজে নিতে হবে এতে গন্ধটা ভালো আসবে পাচফরং এবং লঙ্কার। এবার দিতে হবে আলু আর কুমড়ো একসাথে।

আলু আর কুমড়ো অর্ধেক ভাজা হলে দিয়ে দিতে হবে পেঁয়াজ কুঁচি আর পুঁই শাকের ডাঁটা। সব উপকরণ খুব ভালোভাবে ভাজতে হবে। সব খাবারের উপকরণ ভালোভাবে ভাজা হলে এক এক করে দিয়ে দিতে হবে ভেজানো ছোলা, আদা-রুসুন বাটা, হলুদ- লঙ্কা গুঁড়ো আর চিনি।

এই সময় চিনি দিলে রঙ টা ভালো আসে। কুমড়ো দিয়েছি তাই চিনি দিলাম। আপনারা চায়লে অবশ্যই কম চিনি দিতে পারেন চিনিতে রানার টেস্ট ভালো হই কিন্তু সেটা খুব এ সামান্য পরিমাণে দিতে হবে।

মশলা গুলি ভালোভাবে ভাজা হলে দিতে হবে পুঁই শাক আর নুন একসাথে সাক দেবার একটি পরেই নিন দেবেন। পুঁই শাক দেবার পর বেশ কিছুক্ষণ ধরে নাড়াচাড়া করতে হবে।

এরপর দিতে হবে জল , একটু বেশি করেই দিতে হবে। এবার এটা ঢাকা দিয়ে হতে দিতে হবে প্রায় ১০-১২ মিনিট।

১০ -১২ মিনিট পর ঢাকা খুলে নিতে হবে আর দিয়ে দিতে হবে মাছের ভাঙ্গা মাথা গুলিশন। আবার এটা হতে দিতে হবে ৫ মিনিট। রান্না টা একটু শুকনো শুকনো হবে।

সবশেষে রান্নাটা নামানোর আগে দিতে হবে একটু রোস্টেড জিরে আর গরম মশলা গুঁড়ো। অল্প পরিমাণে মিশিয়ে নিলেই তৈরি মাছের মাথা দিয়ে পুঁই শাক। এর পর পরিবেশন করতে পাবেন ।




Post a Comment

0 Comments